দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত – ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক >> একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

 

তিনি বলেছেন, আমাদের দলীয় মনোনয়ন মোটামুটি শেষ করেছি।এখন অ্যালায়েন্সের সঙ্গে আলাপ আলোচনা, সিট শেয়ারিং নিয়ে আলাপ আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি।খুব শিগগিরই এটি ঠিক হয়ে যাবে।

 

আজ মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি। এ সময় ওবায়দুল কাদের দলীয় মনোনয়ন ও জোটের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়েও কথা বলেন।

 

নির্বাচনে বিদেশী শক্তি হস্তক্ষেপ করতে পারে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমাদের নির্বাচনে বিদেশী রাষ্ট্র হস্তক্ষেপ করবে এমনটি আমার কাছে মনে হয় না। আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারত কোনো দেশের নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করেছে এমনটি তো আমার জানা নেই। তাই আমাদের নির্বাচনে প্রতিবেশী দেশ হস্তক্ষেপ করতে আসবে বলে আমার মনে হয় না।

 

মন্ত্রী-এমপিদের মধ্যে অনেকে মনোনয়ন পাচ্ছে না গণমাধ্যমের এমন সংবাদের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, মন্ত্রিরা ভালো না, এমপিরা ভালো না এটি কেমন কথা। আপনারা আমাকে বলুন তো কোন মন্ত্রী খারাপ। আমাকে প্রমাণ দিন যে, অমুক মন্ত্রী খারাপ। এর পরেই হবে মনোনয়ন দেয়া না দেয়ার সিদ্ধান্ত।

 

তিনি বলেন, কক্সবাজারের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদিকে আমরা এবার ড্রপ করছি। তাকে মনোনয়ন দিচ্ছি না।

 

আরেকটি হলো টাঙ্গাইলে আমানুর রহমান খান রানাকেও এবার দলীয় মনোনয়ন দিচ্ছি না। সেখানে অলটারনেটিভ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

 

জরিপে এগিয়ে থাকা সত্ত্বেও বিতর্ক এড়াতে এই দু’জনকে এবার মনোনয়ন দেয়া হচ্ছে না।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই মুহূর্তে এ বিষয়ে আমার কথা বলা ঠিক হচ্ছে কিনা জানি না। কারণ কারা মনোনয়নের পাচ্ছেন তার খসড়া করা হয়েছে।

 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, কক্সবাজারের সংসদ সদস্য বদি বিভিন্ন জরিপে বহু এগিয়ে। তবু বিতর্ক এড়াতে তাকে এবার মনোনয়ন দেয়া হচ্ছে না। ওই আসনে বদির স্ত্রী শাহীনা আক্তার চৌধুরী নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, টাঙ্গাইলের সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানাও একাধিক জরিপে এগিয়ে। আপনারা চাইলে আমি জরিপের ফল দেখাতে পারি। তবু কনট্রভার্সি (বিতর্ক) এড়াতে আমরা এবার তাকে মনোনয়ন দিচ্ছি না। যদিও তার বিরুদ্ধে তেমন কোনো অভিযোগ নেই। অভিযোগ তার ভাইদের বিরুদ্ধে।

 

তিনি বলেন, আবদুর রহমান বদির বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ সেগুলো প্রমাণিত নয়। তবু আমরা তাকে এবার বাদ দিয়েছি।

 

এ সময় তিনি জানান, আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রায়ই চূড়ান্ত। জোটের শরিক দলগুলোর সঙ্গে আসন বণ্টন নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। ২৫ নভেম্বর জোটগতভাবে চূড়ান্ত মনোনয়ন ঘোষণা করা হবে। তখন সবাই জানতে পারবেন কে কোন আসনে নৌকার প্রার্থী হবেন।

Please follow and like us:
RSS
Facebook
Facebook
Google+
http://sangbadkantho.com/2018/11/%e0%a6%a6%e0%a6%b2%e0%a7%80%e0%a7%9f-%e0%a6%ae%e0%a6%a8%e0%a7%8b%e0%a6%a8%e0%a7%9f%e0%a6%a8-%e0%a6%9a%e0%a7%82%e0%a7%9c%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%8d%e0%a6%a4-%e0%a6%93%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a7%9f/
Twitter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *